শিরোনাম :
যাত্রীকে যৌন হয়রানীর দায়ে গোল্ডেন লাইনের চালক আটক জাতীয় কবি কাজী নজরুলের ১২০ তম জন্মবার্ষিকী আপনার জন্য আজকের রাশিফল পুত্রবধূর নির্যাতন সইতে না পেরে গলায় ফাঁস দিলেন বৃদ্ধ মোবাইল চার্জার মুখে দেয়ায় শিশুর মৃত্যু দেব-মিমি-নুসরাতদের জয় নিয়ে যা বললেন সাকিব বেগম খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় ইফতার মাহফিল হবিগঞ্জে বজ্রপাতে ২ জনের মৃত্যু ভূমধ্যসাগর থেকে ১৪ বাংলাদেশিসহ ২৯০ অভিবাসী উদ্ধার যশোর জেলা পরিষদের ইফতার মাহফিল ব্র্যাক ব্যাংকে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি বাংলাদেশ পুলিশে কনস্টেবল পদে ৯৬৮০ নিয়োগ ভারতে কোচিং সেন্টারে আগুন, ১৯ শিক্ষার্থীর মৃত্যু শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৩৩৮ রান সংগ্রহ দ. আফ্রিকার মোদির রাষ্ট্রে আগুন, নিহত ১৫ ২৬২ রানের টার্গেটে ব্যাট করছে আফগানিস্তান নিষিদ্ধ ৫২ পণ্য বন্ধে ঝালকাঠিতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান ব্রিটিশের প্রথম মুসলিম প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন সাজিদ জাভিদ অভিযান চালিয়ে অপরিপক্ক ৫০ মণ আম ধ্বংস স্ত্রীকে নকল দিতে গিয়ে এএসআই কারাগারে

ভালো ঘুমের জন্য করণীয়

ভালো ঘুমের জন্য করণীয়

ডেস্ক রিপোর্ট : রাতে ভালো  ঘুম আসে না? এই সমস্যা কম বেশি সবার হয়ে থাকে। ভালো ঘুম না হওয়ার কারণে  শরীর ও মনকে নেতিবাচক প্রভাবিত করে। তার প্রভাব পরের দিনের কাজের ওপর  পড়ে। তাই রাতে শান্তি মতো ঘুমানোটা খুবই দরকার। রাতে ভালো ঘুম পেতে যেসব উপায় অবলম্বন করতে পারেন-

সঠিকভাবে ঘুমানোর ভঙ্গি বেছে নিন:

পিঠের উপর ভর দিয়ে ঘুমানো অর্থাৎ চিৎ হয়ে ঘুমানো অনিদ্রা মোকাবেলা করার সেরা উপায়গুলির মধ্যে অন্যতম৷ কারণ এটি আপনার মাথা, ঘাড় ও মেরুদন্ডকে নিরপেক্ষ অবস্থানে বিশ্রাম দেয়৷ যদিও ঘুমানোর এই অবস্থানটি জনপ্রিয় না। তবে বিশেষঞ্জরা নিশ্চিত করেছেন এটি ভালো ঘুমের জন্য সর্বোত্তম পছন্দগুলির মধ্যে একটি৷

এক পাশ ফিরে ঘুমানোর অবস্থানের ফলে শ্বাস প্রশ্বাস সীমিত হতে পারে। ফলে সকালে উঠে আপনি মেরুদন্ডে ব্যাথা অনুভব করতে পারেন।

পরিসংখ্যান অনুযায়ী, প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে ৪১ শতাংশ হাঁটু ভাজ করে পাশ ফিরে ঘুমানোটা পছন্দ করে৷ যদিও এই অবস্থানটি গর্ভবতী মহিলাদের জন্য উপকারী। কিন্তু অন্যদের পক্ষে ঘুমানোর এই অবস্থান খুব একটা ভালো নয়।

ভালো ও শান্তিতে ঘুমানোর জন্য সবচেয়ে খারাপ অবস্থান পেটের উপর ভর দিয়ে ঘুমানো অর্থাৎ উপুড় হয়ে ঘুমনো৷ এইভাবে ঘুমালে মেরুদন্ড সোজা রাখা কঠিন৷ যা আপনার মেরুদন্ড এবং ঘাড় ব্যাথা করে দেয়৷

পুরনো তোষক বাদ দিন:

পুরনো তোষক বাদ দিন। এটির কারণেও আপনার ঘুমের সমস্যা হতে পারে৷ বিষেজ্ঞদের মতে, একটি তোষক সাত বছরের বেশি ব্যবহার করা উচিত নয়৷ কারণ সাত বছের বেশ হয়ে গেলে সেটি আপনার শরীরকে সঠিকভাবে সাপোর্ট দিচ্ছে কিনা তা একবার পরীক্ষা করে দেখে নেবেন৷

বাজারে অনেক ধরণের তোষক আছে৷ কিন্তু আপনার শরীরের আকৃতি, স্বাস্থ্য সমস্যা এবং আপনার বাজেটের উপর নির্ভর করেই সেরা তোষক কেনার চেষ্টা করবেন৷

আরো পড়ুন>>> মাঝরাতে ঘুম ভাঙলে চিন্তা করবেন না! সমাধান জেনে নিন

ঘুমাতে যাওয়ার আগে লেখালেখির অভ্যাস:

ঘুমাতে যাওয়ার আগে সারাদিন আপনার সঙ্গে যে সমস্ত ইতিবাচক ঘটনা ঘটেছে সেগুলি লেখার জন্য নিজেকে ১৫ মিনিট সময় দিন৷ এই কৌশলটি আপনাকে ভালো জিনিসগুলিকে মনোনিবেশ করতে সাহায্য করবে৷ পাশাপাশি আপনার চাপ এবং উদ্বেগ কমাতেও সহায়তা করবে৷ ফলে আপনি শান্তিমতো ঘুমাতে পরবেন৷

দুপুরের ঘুমটা হালকা করুন:

দুপুরে অতিরিক্ত ঘুম আপনার রাতের ঘুম নষ্ট করতে পারে৷ তাই চেষ্টা করুন দুপুরে না ঘুমানোর৷ যদি একান্তই না পারেন তাহলে হালকা ঘুমান৷

স্বাআলো/এএম