শিরোনাম :
ইতিহাসে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে ডাবল সেঞ্চুরির রেকর্ড সৌম্যর গাইবান্ধায় সনাতন ধর্মালম্বীদের ঐতিহ্যবাহী মেলা খুলনায় ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসূচির উদ্বোধন ভাগ্নের অকাল মৃত্যুতে এখনও বাকরুদ্ধ আন্দালিব পার্থ পিরোজপুরে নুসরাত জাহান রাফি হত্যার বিচারের দাবিতে মানববন্ধন রোহিঙ্গারা যেন ভোটার হবার সুযোগ না পায়:ইসি সচিব শহীদ মসিয়ূর রহমানের ৪৮তম মৃত্যু বার্ষিকী পালিত আমতলীতে যুবকের আত্মহত্যা ববি উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে ছাত্র শিক্ষক আন্দোলন অব্যাহত যবিপ্রবির ঘটনায় চৌগাছায় ছাত্রলীগের বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ বাল্যবিয়ের অনুষ্ঠানে কাজিকে ৬ মাসের কারাদন্ড মাগুরায় ৩১ দরিদ্র মেধাবী শিক্ষার্থীকে বৃত্তি প্রদান ভারতের ট্রেলারে সলমান-ক্যাটের বাজিমাত (ভিডিও) প্রথমবার পুতিনের সঙ্গে বৈঠকে বসছেন যাচ্ছে কিম ফের ঢাবি অধিভূক্ত ৭ কলেজের শিক্ষার্থীদের পাঁচ দাবি চুয়াডাঙ্গায় জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহের উদ্বোধন এমডিকে সুপেয় পানির শরবত খাওয়াতে চায় জুরাইনবাসী ‘বিচারহীনতার সংস্কৃতির কারণে ধর্ষণ বাড়ছে’ ধানক্ষেত থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার প্রবাসীদের সুখ-দুঃখে পাশে থাকবেন প্রধানমন্ত্রী যশোরে পুষ্টি সপ্তাহ উদ্বোধন একাত্তরের দুই যুদ্ধাপরাধীর রায় কাল আজকের খেলা ফিলিপাইনে ভূমিকম্পে ১১ জনের প্রাণহানি কিডনি পরিষ্কার করে এই ৯ খাবার

ভালোবাসা দিবসকে ঘিরে যত আয়োজন

ভালোবাসা দিবস

বিনোদন ডেস্ক : আসছে ১৪ ফেব্রুয়ারি ভালোবাসা দিবস। যা ভ্যালেন্টাইনস ডে নামে পরিচিত। দিনটা নিয়ে প্রেমিক-প্রেমিকরা এখন সেরে নিচ্ছেন তাদের প্রস্তুতি ও পরিকল্পনা।

নীল খামে হালকা লিপস্টিকের দাগ, একটা গোলাপ, চকোলেট, ক্যান্ডি, ছোট্ট চিরকুট আর তাতে দু’ছত্র গদ্য অথবা পদ্য হয়ে উঠতে পারে উপহারের অনুষঙ্গ।

ভালোবাসার জন্য তো দিনক্ষণ লাগে না। ইচ্ছে হলেই ভালোবাসা যায়। তবে কখনো কখনো এই ভালোবাসা উদযাপন প্রত্যাশা করে বৈকি। সারা বছর সেটা সম্ভব না হলেও এক উপলক্ষে ভালোবাসার নবায়ন করাই যেতে পারে। আর সেই উপলক্ষ্য হতেই পারে ভ্যালেন্টাইন ডে।

চমৎকার এই দিনটিকে সামনে রেখে অনেকে সংগ্রহ করছেন শাড়ি, সালোয়ার-কামিজ,সিঙ্গেল কামিজ, স্কার্ট-টপস, পাঞ্জাবি, টি-শার্ট।

উৎসবের পরিপূর্ণতার জন্যে যুগল আর পরিবারের সবার জন্যেও অনেক ছুটছেন বিপনী বিতানে।

আজকের এ ভালোবাসা শুধুই প্রেমিক আর প্রেমিকার জন্য নয়। মা-বাবা, স্বামী-স্ত্রী, ভাইবোন, প্রিয় সন্তান এমনকি বন্ধুর জন্যও ভালোবাসার জয়গানে আপ্লুত হতে পারে সবাই। চলবে উপহার দেয়া-নেয়া।

আরো পড়ুন>>> ভালোবাসা দিবসে আপনার সঙ্গীকে খুশি করবেন যেভাবে

অনেকের মতে, ফেব্রুয়ারির এ সময়ে পাখিরা তাদের জুটি খুঁজে বাসা বাঁধে। নিরাভরণ বৃক্ষে কচি কিশলয় জেগে ওঠে। তীব্র সৌরভ ছড়িয়ে ফুল সৌন্দর্যবিভায়। পরিপূর্ণভাবে বিকশিত হয়। এ দিনে চকোলেট, পারফিউম, গ্রিটিংস কার্ড, ই-মেইল, মুঠোফোনের এসএমএস-,এমএমএসে প্রেমবার্তা, হীরার আংটি, প্রিয় পোশাক, জড়াজড়ি করা খেলনা, মার্জার অথবা বই ইত্যাদি শৌখিন উপঢৌকন প্রিয়জনকে উপহার দেয়া হয়।

ইতিহাসবিদদের মতে, দুটি প্রাচীন রোমান প্রথা থেকে এ উৎসবের সূত্রপাত। এক খ্রিস্টান পাদ্রী ও চিকিৎসক ফাদার সেন্ট ভ্যালেনটাইনের নামানুসারে দিনটির নাম ‘ভ্যালেনটাইনস ডে’ করা হয়। ২৭০ খ্রিস্টাব্দের ১৪ ফেব্রুয়ারি খ্রিস্টানবিরোধী রোমান সম্রাট গথিকাস আহত সেনাদের চিকিৎসার অপরাধে সেন্ট ভ্যালেনটাইনকে মৃত্যুদণ্ড দেন।

মৃত্যুর আগে ফাদার ভ্যালেনটাইন তার আদরের একমাত্র মেয়েকে একটি ছোট্ট চিঠি লেখেন, যেখানে তিনি নাম সই করেছিলেন ‘ফ্রম ইওর ভ্যালেনটাইন’। সেন্ট ভ্যালেনটাইনের মেয়ে এবং তার প্রেমিক মিলে পরের বছর থেকে বাবার মৃত্যুর দিনটিকে ভ্যালেনটাইনস ডে হিসেবে পালন করা শুরু করেন। যুদ্ধে আহত মানুষকে সেবার অপরাধে মৃত্যুদণ্ডে দণ্ডিত সেন্ট ভ্যালেনটাইনকে ভালোবেসে দিনটি বিশেষভাবে পালন করার রীতি ক্রমে সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে।

ভ্যালেনটাইনস ডে সার্বজনীন হয়ে ওঠে আরও পরে প্রায় ৪০০ খ্রিস্টাব্দের দিকে। দিনটি বিশেষভাবে গুরুত্ব পাওয়ার পেছনে রয়েছে আরও একটি কারণ। সেন্ট ভ্যালেনটাইনের মৃত্যুর আগে প্রতি বছর রোমানরা ১৪ ফেব্রুয়ারি পালন করত ‘জুনো’উৎসব। রোমান পুরানের বিয়ে ও সন্তানের দেবী জুনোর নামানুসারে এর নামকরণ।

এ দিন অবিবাহিত তরুণরা কাগজে নাম লিখে লটারির মাধ্যমে তার নাচের সঙ্গীকে বেছে নিত। ৪০০ খ্রিস্টাব্দের দিকে রোমানরা যখন খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীতে পরিণত হয় তখন ‘জুনো’ উৎসব আর সেন্ট ভ্যালেনটাইনের আত্মত্যাগের দিনটিকে একই সূত্রে গেঁথে ১৪ ফেব্রুয়ারি ‘ভ্যালেনটাইনস ডে’ হিসেবে উদযাপন শুরু হয়। কালক্রমে এটি সমগ্র ইউরোপ এবং ইউরোপ থেকে সারাবিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে।

স্বাআলো/এএম