শিরোনাম :
পঞ্চগড়সহ ৪ জেলার পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহার শ্রীলঙ্কায় নিহতের সংখ্যায় কমেছে ১০৬ জন ইলিশ ধরায় ১৩ জনকে ৭ দিনের কারাদণ্ড দ্বিতীয় অধিবেশনে প্রশ্ন রয়েছে ১০৮৪টি কাঙ্খিত মান অর্জন সাপেক্ষে পর্যায়ক্রমে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত হবে : শিক্ষামন্ত্রী চেয়ারম্যানের গুলিতে কৃষক নিহত শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে বৃদ্ধের কারাদণ্ড বিএনপির নেতা জাহিদ শপথ নেয়ায় ভোটাররা আনন্দিত বরগুনায় উপজেলা চেয়ারম্যানদের শপথ গ্রহণ সরকারি চাকরিতে আপাতত বয়সসীমা ৩৫ হচ্ছে না আগামী ১০ মে ১৬ জেলায় প্রাথমিকের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা হাজী সরদার মর্ত্তুজ আলী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে স্বাধীনতা দিবস উদযাপন টিসিবির পণ্য উত্তোলন করলেও গাইবান্ধায় শুরু হয়নি বিক্রি ওসির ফেসবুক আইডি হ্যাকড ইবিতে চট্টগ্রাম সমিতির বিদায় ও নবীণ বরণ পিরোজপুরে উপজেলা চেয়ারম্যানদের শপথ গ্রহণ সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩৫ করার প্রস্তাব নুসরাত হত্যা মামলায় শাকিল গ্রেপ্তার স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে যুবক কারাগারে নুসরাত হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবি ‘রমজানে রংপুর বিভাগকে নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে দেয়া হবে’ ধর্মঘটকে পুঁজি করে অটোর ভাড়া দ্বিগুণ ইউনিসেফের ‘শিশু অধিকার’ প্রতিনিধি হলেন মিরাজ পরীক্ষা কেন্দ্রে যৌন হয়রানির অভিযোগে প্রদর্শক কারাগারে বখাটের হাত থেকে রক্ষা পেতে শিক্ষকের সংবাদ সম্মেলন

নববর্ষে ধারালো রামদার ওপর দাঁড়িয়ে স্রষ্টার আরাধনা

১০৬ বছর

জেলা প্রতিনিধি, বাগেরহাট : নববর্ষকে ১০৬ বছর ধরে ব্যতিক্রমী ভাবে আয়োজন করে আসছে রামদায় সম্প্রদায়ের মানুষ। বাগেরহাটের এ সম্প্রদায়ের মানুষ ধারালো অস্ত্রের ওপর দাঁড়িয়ে স্রষ্টার আরাধনা করে।

গ্রামের সকলের মঙ্গল কামনায় ১০৬ বছর ধরে প্রতি পহেলা বৈশাখেই জেলা সদরের কাড়াপাড়া ইউনিয়নের কাড়াপাড়া বাজারে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে আসছে এলাকাবাসী।

রবিবার বিকেলে দেখা যায়, বাজারের পাশে জমিদার বাড়ির কালকের দীঘিতে রামদা নিয়ে ডুব দেয় ৩ যুবক। পরে পানি থেকে উঠে পুকুরের সিঁড়ি দাঁড়ায় তারা। এরপর প্রথমে ২ যুবক রামদাটিকে হাত দিয়ে ধরে রাখেন, পরে আরেক সাদা ধুতি পরে খালি শারীরে ধারালো অস্ত্রটির ওপর উঠে দাঁড়ান। ওই অস্ত্রের ওপর দাঁড়িয়ে পুরো বাজার ঘুরে অস্থায়ী ঠাকুর ঘরে ৭টি চক্কর দেন তারা। এ সময় সনাতন ধর্মালম্বী ভক্তরা উলু ধ্বনি দিয়ে ওই যুবকদের উৎসাহ দেন। পরে রামদা ধুয়ে ভক্তদের জল দেন পুরোহিত। রোগ মুক্তি ও মঙ্গল কামনায় এই জল পান ও শরীরে মাখেন ভক্তরা।

ব্যতিক্রমধর্মী এ অনুষ্ঠান দেখতে আসা বৃদ্ধ তারক মন্ডল বলেন, জমিদারদের আমল থেকেই এখানে রামদার ওপর দাঁড়ানো অনুষ্ঠান হয়ে আসছে। আমরা সকলে এদিন খুব আগ্রহ নিয়ে এটি দেখি। ভগবানের নৈকট্য লাভের জন্য প্রার্থনা করি।

৭৫ বছর বয়সী মহারাণী শিকদার বলেন, যে কোনো ক্ষতির হাত থেকে বাঁচতে আমরা এ অনুষ্ঠান করে থাকি। পরিবারের সকলকে নিয়ে এ অনুষ্ঠানে আসি। রামদা ধোয়া পানি ব্যবহার করি।

আরো পড়ুন >>>১১ কোটি টাকায় খুলনা স্টেডিয়ামের উন্নয়ন শুরু

রামদার ওপর দাঁড়ানো যুবক সাগর সাহা (৪১) বলেন, ১০৬ বছর ধরে আমাদের গ্রামে এ উৎসব চলছে। আমি ২৮ বছর ধরে নিয়মিত রামদার ওপর দাঁড়িয়ে আসছি। গ্রামের সকলের মঙ্গল কামনায় আমাদের এই আয়োজন।

উৎসবের পুরোহিত বিলেশ্বর চক্রবর্তী (৮২) জানান, আমরা ভগবানের কৃপা লাভের আশায় এ পূজা করি।

স্বাআলো/এইসএম