শিরোনাম :
ইতিহাসে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে ডাবল সেঞ্চুরির রেকর্ড সৌম্যর গাইবান্ধায় সনাতন ধর্মালম্বীদের ঐতিহ্যবাহী মেলা খুলনায় ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসূচির উদ্বোধন ভাগ্নের অকাল মৃত্যুতে এখনও বাকরুদ্ধ আন্দালিব পার্থ পিরোজপুরে নুসরাত জাহান রাফি হত্যার বিচারের দাবিতে মানববন্ধন রোহিঙ্গারা যেন ভোটার হবার সুযোগ না পায়:ইসি সচিব শহীদ মসিয়ূর রহমানের ৪৮তম মৃত্যু বার্ষিকী পালিত আমতলীতে যুবকের আত্মহত্যা ববি উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে ছাত্র শিক্ষক আন্দোলন অব্যাহত যবিপ্রবির ঘটনায় চৌগাছায় ছাত্রলীগের বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ বাল্যবিয়ের অনুষ্ঠানে কাজিকে ৬ মাসের কারাদন্ড মাগুরায় ৩১ দরিদ্র মেধাবী শিক্ষার্থীকে বৃত্তি প্রদান ভারতের ট্রেলারে সলমান-ক্যাটের বাজিমাত (ভিডিও) প্রথমবার পুতিনের সঙ্গে বৈঠকে বসছেন যাচ্ছে কিম ফের ঢাবি অধিভূক্ত ৭ কলেজের শিক্ষার্থীদের পাঁচ দাবি চুয়াডাঙ্গায় জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহের উদ্বোধন এমডিকে সুপেয় পানির শরবত খাওয়াতে চায় জুরাইনবাসী ‘বিচারহীনতার সংস্কৃতির কারণে ধর্ষণ বাড়ছে’ ধানক্ষেত থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার প্রবাসীদের সুখ-দুঃখে পাশে থাকবেন প্রধানমন্ত্রী যশোরে পুষ্টি সপ্তাহ উদ্বোধন একাত্তরের দুই যুদ্ধাপরাধীর রায় কাল আজকের খেলা ফিলিপাইনে ভূমিকম্পে ১১ জনের প্রাণহানি কিডনি পরিষ্কার করে এই ৯ খাবার

যশোরে ম্যানসেল বাহিনীর বোমা হামলা: হরিজনদের বিক্ষোভ

যশোরে বোমাবাজি-সুইপারদের বিক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদক, যশোর: যশোরের শীর্ষ সন্ত্রাসী, একাধিক হত্যা মামলার আসামি ম্যানসেল বাহিনী চাঁদার দাবিতে হরিজন পল্লীতে বোমা হামলা চালিয়েছে। হরিজন পল্লীর বাসিন্দারা এসময় রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করেছে। দফায় দফায় বিক্ষোভ শেষে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে। যশোর কোতয়ালি থানার ওসি ঘটনার সাথে জড়িতদের আটকের আশ্বাস দিলে পরিস্থিতি শান্ত হয়েছে।

হরিজন পল্লীর বাসিন্দা রঞ্জন সরকার, সাধন, নিলয়, বাসন্তি জানান, স্টেশন এলাকার শীর্ষ সন্ত্রাসী ম্যানসেল কয়েকদিন আগে হরিজন পল্লীতে মাদক ব্যবসা বন্ধ করার কারণ জানতে চান। সে সময় পল্লীর বাসিন্দারা কোন অবস্থায় মাদক বিক্রি করবে না জানিয়ে দিলে সে প্রতি সপ্তাহে (মাদক ব্যবসার লাভ বাবদ) দশ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। হরিজনরা ওই চাঁদার টাকা দিতে অস্বীকার করে। তখন হরিজন পল্লী নিশ্চিহ্ন করার হুমকি দিয়ে ম্যানসেল চলে যায়।

বাসন্তি রাণী, অমেলা রাণী, রঞ্জন, মালতি রাণী, শিলা রাণী জানান,  আজ রবিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) বিকাল ৩টার দিকে ম্যানসেল বাহিনীর সদস্য জাহিদ, সুমন, মেহেদি, রমজান, সাগর, নয়ন, রবিউলসহ ৭-৮জন হরিজন পল্লীতে আসেন এবং মাদক ব্যবসা করতে চাপ দেয়। বাসিন্দারা এসময় রাজি না হলে তারা দশ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। চাঁদার টাকা দিতে অস্বীকার করলে সন্ত্রাসীরা অমেলা এবং বাসন্তিকে মারপিট করে। পল্লীর অন্য বাসিন্দারা এগিয়ে তারা প্রথমে দুটি বোমা বিস্ফোরণ ঘটায়। বোমার শব্দ শুনে পাড়ার অন্যান্যরা ছুটোছুটি শুরু করলে ক্ষিপ্ত হয়ে সন্ত্রাসীরা হরিজন পল্লীর মন্দিরে বোমা হামলা চালায়।

ক্ষুদ্ধ বাসিন্দারা সবাই ঘর থেকে বের রাস্তার ওপর চলে আসে এবং বিক্ষোভ করতে থাকে। টায়ার আগুন ধরিয়ে ম্যানসেল বাহিনীর বিরুদ্ধে শ্লোগান দিয়ে   বিক্ষোভ করতে তাকে। সংবাদ পেয়ে কোতয়ালি থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে। পরিস্থিতি শান্ত করার চেস্টা করে। মারপিট ও মন্দিরে হামলার ঘটনায় হরিজন সদস্যরা বিক্ষোভে ফেটে পড়েন এবং বিক্ষোভ করতে করতে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে যান। সেখানে কয়েকদফা বিক্ষোভ করে তারা হরিজন পল্লীর সামনে রাস্তার ওপর জড়ো হয়।

আরো পড়ুন>> বাংলাদেশে প্রথম নারী মেজর জেনারেল সুসানে গীতি

বিকাল চারটার দিকে যশোর কোতয়ালি থানার ওসি অপূর্ভ হাসান ঘটনাস্থলে ছুটে যান এবং ঘটনার সাথে জড়িতদের আটকের আশ্বাস দিলে তারা রাস্তা ছেড়ে দেয়।

এ ব্যাপারে অপূর্ব হাসানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি স্বাধীন আলোকে বলেন, পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক। দোষীদের আটকের জন্য পুলিশ অভিযানে আছে।

হরিজন পল্লীর বাসিন্দারা অভিযোগে জানান, শীর্ষ সন্ত্রাসী ম্যানসেল দীর্ঘদিন ধরে স্টেশন এলাকায় মাদক ব্যবসা করে। ওই মাদক ব্যবসা না করলে তাদেরকে পুলিশ দিয়ে ধরিয়ে দেয় এবং মামলা দিয়ে নানা ভাবে হয়রানি করে।

ম্যানসেল বাহিনী শুধু হরিজন পল্লীতে নয়, স্টেশন এলাকার সব জায়গায় মাদক ব্যবসা করাচ্ছে। তাদের এ ব্যবসা না করলে তাদেরকে পুলিশ দিয়ে ধরিয়ে দেয় এবং মাদকসহ একাধিক মামলায় জড়িয়ে দেয়। তারা ম্যানসেল বাহিনীকে আটক করে দৃষ্টান্ত শাস্তি দাবি করেছেন।

স্বাআলো/এম