আজ বুধবার ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ইং ৮ ফাল্গুন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ বসন্তকাল ১৩ জমাদিউস-সানি, ১৪৪০ হিজরী
শিরোনাম :
ইতিহাস ঐতিহ্যে ভরপুর ঝিনাইদাহের বারোবাজার ইউসিবিএল ব্যাংকের ম্যানেজারের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা রাজ্জাকের পদত্যাগকে স্বাগত জানালেন ড. কামাল ৩১ শিশুর দেহাবশেষ উদ্ধারের ঘটনায় দুই ডাক্তার বরখাস্ত মণিরামপুরে ভাইয়ের হাতে বোন খুন জেনে নিন, আনারস আর দুধ একসাথে খেলে কি হয় ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ১৬টি অঙ্গরাজ্যের মামলা সড়ক দুর্ঘটনায় ডিশ ব্যবসায়ী নিহত নদী আর গহীন অরণ্যের মাঝে ঘুরে আসুন সুন্দরবন চুয়াডাঙ্গায় সোলার লাইট স্থাপন কার্যক্রম উদ্বোধন পুলিশ হেফাজতে সালমান মুক্তাদির জিজ্ঞাসাবাদ প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে বিজ্ঞানের ২০ শতাংশ অগ্রাধিকার নকলের সুযোগ না দেয়ায় শিক্ষিকাকে জুতাপেটা স্মার্ট কার্ড পেয়েছেন, জেনে নিন কি কি সুবিধা পাবেন চৌগাছায় আ.লীগ নেতা হত্যায় ১৭ জনের নামে মামলা মুক্তির অপেক্ষায় ‘বিউটি সার্কাস’: জয়া ও ফেরদৌস ১৫ মার্চ থেকে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা শুরু কাশিয়ানীতে কোচিং সেন্টারে অভিযান: পোড়ানো  হলো বেঞ্চ বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে পারভীন হকের শ্রদ্ধা যেই ১০টি উক্তি বদলে দিবে তোমার জীবন ছোট দোয়ার গুরুত্ব অনেক বেশি ইতিহাস বিকৃতি করায় সম্পাদককে হাইকোর্টে তলব দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করে নির্বাচনী মাঠে বিএনপির তিন নেতা বৃষ্টি হলেই রাস্তা ছেঁড়া কাঁথার মত হয় কেন : কাদের যশোরে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী বিপুলের আ.লীগ নেতাদের সাথে মতবিনিময়

ইয়াবা ব্যবসায়ী মনিরকে খুঁজছে পুলিশ

ইয়াবা ব্যবসায়ি মনির

জেলা প্রতিনিধি, ঝালকাঠি : ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার ফেরিঘাট এলাকার আলোচিত ইয়াবা ব্যবসায়ি মনির হাওলাদারকে খুঁজছে পুলিশ। তাকে গ্রেফতার করতে মাঠে নেমেছে পুলিশের একাধিক টিম। নলছিটির আনাচে-কানাচে দফায় দফায় অভিযান চালিয়েছে পুলিশ। সম্প্রতি তার বিরুদ্ধে নলছিটি থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা হওয়ার পর তিনি পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। নলছিটি ফেরিঘাট এলাকার মো. জলিল হাওলাদারের ছেলে মনির ।

স্থানীয়রা জানান, মনির ছিলেন একজন সাধারণ জেলে। যার কোন ভাবে দিন কাটতো। ইয়াবা ব্যবসা করে অল্প সময়েই চলে যান লাখপতি বনে। চিহ্নিত ও প্রভাবশালী ইয়াবা ব্যবসায়িদের সঙ্গে তার উঠাবসা। নলছিটি ফেরিঘাট এলাকা থেকে ইয়াবা উদ্ধারের ঘটনায় মনিরের বিরুদ্ধে পুলিশ বাদি হয়ে মামলা দায়েরের পর এলাকাবাসির কাছে বিষয়টি পরিষ্কার হয়ে যায়।

তারা আরও জানান, মনিরের ইয়াবা ক্রয়-বিক্রয়ের ধরনটা একটু আলাদা। ধরাছোঁয়ার বাহিরে থাকতে সে ইয়াবা বেচাকেনা করেন মোবাইলফোনের মাধ্যমে। এ কাজের জন্য রয়েছে তার নিজস্ব প্রশিক্ষিত বাহিনী। এছাড়া সে মাঝে মাঝে রুট পরিবর্তন করে মাছ ধরার ট্রলার ব্যবহার করেও ইয়াবা আনতো ।

মনিরের ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই আজিজুর রহমান বলেন, গত ২ ফেব্রুয়ারি রাতে পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে মাদক বিক্রয়ের জন্য মনির ফেরির পল্টুনে অবস্থান করছিল্। এসময় নলছিটি থানার এসআই রাসেল মোল্লা পুলিশের একটি টিম নিয়ে ওই এলাকায় অভিযান চালায়। পুলিশের উপস্থিতি

আরো পড়ুন>>> ঝালকাঠিতে কিশোরীর আত্মহত্যা

টের পেয়ে মনির একটি সাদা পলিথিনে মোড়ানো ১২ পিস ইয়াবা ফেলে কৌশলে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় এসআই রাসেল মোল্লা বাদি হয়ে নলছিটি থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এসআই আব্দুল আজিজ আরো বলেন, মনির চিহ্নিত ইয়াবা ব্যবসায়ী। তাকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে। মাদকের ব্যাপারে পুলিশ কাউকে ছাড় দিবে না।

স্বাআলো/এএম