শিরোনাম :
নুসরাত হত্যায় পুলিশের তদন্ত শেষ : ৭দিনের মধ্যে  রিপোর্ট তিনদিনের সফরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কাল ব্রুনাই যাচ্ছেন রবিবার পবিত্র শবেবরাত ১৪ দলের আলোচনা সভা আগামী সোমবার শপথ নেয়ায় মোকাব্বির খানকে  শোকজ এক দশক পর যশোর বিএনপির কমিটি গঠন ভাঙ্গুলী এলাকায় ২৫ বছর পর সংসদ সদস্যের পরিদর্শন যুব ইউনিয়নের গাইবান্ধা জেলা শাখার সম্মেলন অনুষ্ঠিত সোনাগাজী আ.লীগ সভাপতি রুহুল পাঁচদিনের রিমান্ডে ‘বাগেরহাটবাসীকে শিক্ষিত, মার্জিত, মেধাবী ও দক্ষ হতে হবে’ নুসরাত হত্যার বিচার দাবিতে সোনালী স্বপ্নের প্রতিবাদ সভা পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি শান্তির ধর্ম ইসলাম : প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু-প্রধানমন্ত্রীর ছবি অবমাননার প্রতিবাদকারী আট ছাত্রলীগ নেতা বহিস্কার চাকরির বয়স ৩৫ করার দাবিতে সমাবেশ, আটক ৭ শাহজালাল বিমানবন্দর থেকে ১২০ স্বর্ণবার জব্দ মেয়ে-জামাইকে দাওয়াত দিয়ে বাড়ি ফেরা হলো না হাতেম আলীর টাঙ্গাইলে ভুয়া চিকিৎসক আটক শিক্ষার্থীদের শিক্ষাবৃত্তি ও মুক্তিযোদ্ধার সম্মাননা প্রদান নলছিটিতে প্রতিপক্ষের হামলায় ইউপি সদস্যসহ আহত ৬ টোল ও সড়কে চাঁদা বন্ধের ঘোষণা দিলেন আমতলীর পৌরমেয়র তিস্তার ভাঙনে সুন্দরগঞ্জের বিস্তীর্ণ এলাকা বিলিন হচ্ছে জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা সপ্তাহের সমাপনী `কুয়েটের গবেষণা আগামীর বাংলাদেশের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ’ জঙ্গল থেকে নবজাতক কন্যাশিশু উদ্ধার

শহীদ মিনার শূন্য বরগুনার অধিকাংশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

শহীদ মিনার

জেলা প্রতিনিধি, বরগুনা : যাদের আত্মত্যাগের বিনিময় আজ বাঙ্গালী মায়ের ভাষায় কথা বলে। তাদের ঋন কোন দিন শোধ করা যাবেনা। তাদের স্মরণে বাঙ্গালীরা প্রতি বছর পালন করে ২১ ফেব্রুয়ারী আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। কিন্তু বরগুনা জেলার আমতলী ও তালতলী উপজেলার ৩৩৫টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে অধিকাংশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কোন শহীদ মিনার নেই। সব মিলিয়ে মাত্র ৫ টি শহীদ মিনার রয়েছে আমতলী ও তালতলীতে। শিক্ষার্থীরা অস্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণ করে দিবসগুলো পালন করছে।

শিক্ষা অফিস সূত্রে জানাগেছে, দু’উপজেলায় ৩৩৯টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এর মধ্যে আমতলী ১৫৯ টি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ৩৮ টি মাধ্যমিক, ২৯ টি মাদ্রাসা ও ৫ টি কলেজ এবং তালতলীতে ৭৪ টি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ১৬ টি মাধ্যমিক, ১২ টি মাদ্রাসা ও ২ টি কলেজে শহীদ মিনার নেই।

ভাষা আন্দোলনের বহু বছর অতিক্রান্ত হলেও সরকারি কিংবা প্রতিষ্ঠানের উদ্যোগে আজ পর্যন্ত আমতলী ও তালতলী উপজেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে কোনো শহীদ মিনার গড়ে ওঠেনি। শিক্ষার্থীরা কলাগাছ ও বাঁশ দিয়ে অস্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণ করে সেখানে পুষ্পমাল্য অর্পণের মাধ্যমে বিভিন্ন দিবস পালন করছে।

আমতলী এম.ই. মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নাসির উদ্দিন জানান, ‘সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার নির্মাণ করা হলে কোমলমতি শিশু শিক্ষার্থীরা ভাষা আন্দোলনের ব্যাপারে জানতে আরও আগ্রহ প্রকাশ করবে। শহীদ মিনার না থাকায় শিক্ষার্থী এবং শিক্ষকরা এ দিবস সম্পর্কে তেমন একটা গুরুত্ব দেন না।’

আরো পড়িুন >>>গৌরীপুরে ভিসা ব্যবসায়ী সৌদি নাগরিকের লাশ উদ্ধার

আমতলী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আকমল হোসেন জানান, ‘শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের কৌশল অধিদপ্তরে তালিকা পাঠিয়েছি কিন্তু এখনো কোন সারা পাইনি।’

স্বাআলো/এইসএম